Saturday, January 28, 2023

আটপাড়ায় তীব্র শীতে কৃষক ব্যস্ত বোর ধান আবাদে

মো. আসাদুজ্জামান খান সোহাগ, স্টাফ রিপোর্টার

- Advertisement -

প্রতি বৎসরের ন্যায় এবারই বোরো আবাদে ব্যস্ত সময় পার করছেন নেত্রকোণার আটপাড়া উপজেলার কৃষকরা। তীব্র শীত উপেক্ষা করে বাড়ছে কৃষকদের কর্মব্যস্ততা। শীতের হিমেল হাওয়া আর ঘন ঘন কুয়াশার মধ্যেই কোদাল আর কাস্তে হাতে মাঠে নেমেছেন কৃষকরা। বোরো চাষে লাভবান হওয়ায় আগ্রহ বেড়েছে উপজেলার ধান চাষিদের মধ্যে।

- Advertisement -

তবে লোকসান ঠেকাতে সরাসরি কৃষকদের কাজ থেকে ধান কেনার দাবি জানিয়েছেন তারা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বোরো আবাদে তেমন সমস্যা হবে না বলে মনে করেন স্থানীয় কৃষকরা। এবার বোরো আবাদ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে মনে করছে স্থানীয় কৃষি বিভাগ।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি বোরো মৌসুমে উপজেলায় বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১২৩৮০ হেক্টরের অধিক। ধান চাষে উপজেলার কৃষকদের আগ্রহ বাড়াতে সরকারিভাবে প্রণোদনা, উচ্চফলনশীল জাতের ধান বীজ ও সার সহযাগিতা দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

বিভিন্ন মাঠ ঘুরে দেখা গেছে, মাঠে মাঠে চলছে বোরো রোপনের ব্যস্ততা। কোথাও কোথাও বীজতলা থেকে চারা তুলে তৈরি জমিতে চারা রোপন করছেন। বানিয়াজান, আটপাড়া, মোবারকপুর, পাহাড়পুর, স্বরমুশিয়া, শুনই, তেলিগাতী, দুওজ, লুনেশ্বর, সুখারীসহ আশপাশ এলাকার বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে বোরো আবাদে ধুম পড়েছে। কৃষকেরা তাদের জমির আইল ছাটা, আগাছা বাছাই, জৈবসার প্রয়োগ ও সেচের ড্রেন নির্মাণ করছেন।

বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠে ধানের কচি চারার সবুজ গালিচ কোথাও গভীর নলকূপ থেকে চলছে ট্রাক্টর, পাওয়ার ট্রিলার দিয়ে কোথাও চলছে জমি চাষের কাজ। আটপাড়া উপজেলার মাঠে মাঠে চলছে বোরো ধানের আবাদের ধুম। তীব্র শীতেও ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কৃষকদের দম ফেলার সময় নেই।
বানিয়াজান ইউনিয়নের কৃষক মো: আসাদুজ্জামান খান সোহাগ জানান, বাজারে ডিজেল তেল, কীটনাশক, সার সরকারি মূল্যে পাওয়ায় আমাদের কৃষি কাজে সুবিধা হয়েছে। সারের উচ্চমূল্য না থাকায় কৃষকরা সস্তিতে রয়েছেন। সকল কৃষকেরা জমি বর্গা চাষী না দিয়ে নিজেরাই রোপন করছেন।

- Advertisement -

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ ফয়জুন্নাহার নিপা বলেন, কৃষদের আধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতিসহ সব ধরণের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি বøকের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা নিজ নিজ দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন করে যাচ্ছেন। এবার বোরো মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১২৩৮০ হেক্টর। তবে এর চেয়ে বেশি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: শাকিল আহমেদ জানান, বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। কৃষকদের উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছেন। আমরা সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ফেরিওয়াল মত কাজ করে যাচ্ছি। আটপাড়া উপজেলা সকল ডিলার, সাব ডিলার ও খুচরা বিক্রেতাদের নিয়ে সভা করে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী ন্যায্য মূল্যে কৃষকদের মাঝে কৃষি সরঞ্জামাদি বিক্রয় করতে বলে দিয়েছি। কারো বিরুদ্ধে নির্ধারিত মূল্যের বেশি টাকায় বিক্রয়ের অভিযোগ পাওয়া গেলে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন: কেন্দুয়ায় জমি নিয়ে বিরোধে হামলা, নারীসহ আহত-৬

- Advertisement -
সম্পর্কিত সংবাদ
- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ