রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২

গুম-খুন মানবাধিকারের লঙ্ঘন করে পুরো রাষ্ট্রকেই যেনো ‘আয়না ঘরে’ বন্দি রাখা হয়েছে ইসলামপুরে বিএনপি’র বিক্ষোভ মিছিলে …………………..সাবেক এমপি আলহাজ সুলতান মাহমুদ বাবু

হোসেন শাহ্ ফকির, ইসলামপুর (জামালপুর) প্রতিনিধি :

- Advertisement -

নজিরবিহীন লোডশেডিং, জ্বালানী তেল, সার, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যে, পরিবহন ভাড়া অস্বাভাবিক বৃদ্ধি,

- Advertisement -

ভোলায় বিক্ষোভ মিছিলে গুলি করে ছাত্রদল সভাপতি নূরে আলম এবং স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আবদুর রহিমকে হত্যার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২২ আগস্ট) সকাল ১১টায় উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি আলহাজ সুলতান মাহমুদ বাবুর নেতৃত্বে নেতাকর্মী ও জনসাধারণের অংশগ্রহণে বিক্ষোভ মিছিলটি পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ধর্মকুড়া উপজেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে গিয়ে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

- Advertisement -

মিছিলে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড থেকে যোগ দেয়া নেতাকর্মীরা ‘জ্বালানী তেলের দাম বাড়লো কেনো, ব্যর্থ সরকার জবাব চাই’, ‘সারের দাম বাড়লো কেন, সরকার জবাব দাও’, ‘চাল ডাল তেলের দাম কমাতে হবে, কমিয়ে দাও’, জনতার দাবি এক, দুর্ভোগ সৃষ্টিকারী সরকারের পদত্যাগ, ‘এই মুহুর্তে দরকার, তত্তবাবধায়ক সরকার’, ভোলায় গুলি কেন, লাশ কেন, জবাব চাই জবাব চাইসহ বিভিন্স ¯েøাগানে ¯েøাগানে রাজপথ মুখরিত তুলেন। এছাড়া নেতাকর্মীরা বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ফেস্টুনও বহন করে মিছিলে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি আলহাজ সুলতান মাহমুদ বাবু বলেন, আওয়ামী সরকারের ব্যর্থতা ও ভুল সিদ্ধান্তে জনজীবনে নাভিশ্বাস হয়ে উঠেছে। মানুষের আয় সঙ্কুচিত হয়ে গেছে। প্রতিটি পণ্যের দাম আকাশচুম্বী।

- Advertisement -

নজিরবিহীন লোডশেডিংয়ে মানুষ বিপর্যস্ত, কল-কারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। ক্ষরায় ও পানি দিতে না পারায় ধান ক্ষেত ফেটে চৌচিড়। বিদ্যুৎ সঙ্কট, সার ও জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে কৃষকের মাথায় হাত। অন্যদিকে গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার সুদূর পরাহত।

তিনি আরো বলেন, গুম ও খুনসহ মানবাধিকারের লঙ্ঘন করে পুরো রাষ্ট্রকেই যেনো ‘আয়না ঘরে’ বন্দি রাখা হয়েছে। সর্বগ্রাসী সঙ্কটে দেশ বিপর্যস্ত। সরকারের মসনদ কেঁপে উঠছে। জনগণ দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। জোর করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে তারা তালগোল পাকিয়ে ক্রমাগত মিথ্যাচার করছে এবং সত্যকে আড়াল করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।

জনতার ক্ষোভ-বিক্ষোভ দাবানলের মত গ্রাম-গঞ্জে, পাড়া-মহল্লায় ছড়িয়ে পড়ছে, মানুষের রক্ত চুষে সরকার রক্ত চক্ষু দেখিয়ে আন্দোলন দমন করতে পারবে না। চলমান আন্দোলন অচিরেই জনদুর্ভোগ সৃষ্টিকারী সরকার পতনের আন্দোলনে পরিণত হবে।

এ সময় আরোও বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজভী আল জামালী রঞ্জ, উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নুরুল ইসলাম নবাব, রেজাউল করিম ঢালী, আওয়াল খান লোহানী , একেএম শহিদুর রহমান, মিজানুর রহমান খান শাহীন, বাবুল সরদার, জাকির হোসেন, মাহমুদুল হাসান কবির মঞ্জিল, আবির আহমেদ বিপুল মাষ্টার, নাজিম হোসেন নোমান প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিথ ছিলেন হেলাল উদ্দিন, হাফিজুর রহমান, মাহফুদুজ্জামান লুলু, সামিউল হক লাভলু, মাজহারুল ইসলাম বিপুল, নাজমুল হাসান কায়েস, তুষার প্রধান, শাকিল আহমেদ পাপন।

আরও পড়ুন বারহাট্টায় মেধাবী ছাত্র এমদাদুল হকের স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার

- Advertisement -
এই জাতীয় আরও সংবাদ
- Advertisment -

জনপ্রিয় সংবাদ