শনিবার, অক্টোবর ১, ২০২২

চকরিয়ায় বদরখালী সমিতির সভ্যপদ নিয়ে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম, আহত-২

কফিলউদ্দিন চকরিয়া কক্সবাজার প্রতিনিধি

- Advertisement -

কক্সবাজার চকরিয়ায় বদরখালী সমবায় কৃষি ও উপনিবেশ সমিতির মেম্বারশীপ (সভ্য পদ) নিয়ে পারিবারিক ও পূর্ব শত্রুতার জেরে এক আড়তদার ব্যবসায়ীকে একদল সন্ত্রাসী বাড়ি ফেরার পথে হামলা চালিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। এ সময় ব্যবসায়ীর কাছে থাকা নগদ ১লক্ষ ২৫ হাজার থাকা ছিনিয়ে নেয়া হয়। স্থানীরা এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে আহত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

- Advertisement -

এ ঘটনায় চকরিয়া থানায় ৫ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক আরো ৩/৪ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষথেকে শনিবার রাতে থানায় একটি এজাহার জমা দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বদরখালী ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের কুতুবদিয়া পাড়াস্থ আহত ব্যবসায়ীর চলাচল রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে।

- Advertisement -

সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত ব্যাক্তিরা হলেন, ওই এলাকার আবু ছৈয়দের পুত্র আড়তদার ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম (৫৫), তার স্ত্রী জাহেদা বেগম (৪৫), তাদের ছেলে মো: হাসান (১৭)।

থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানাগেছে, শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বদরখালী ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের কুতুবদিয়া পাড়া এলাকার আবু ছৈয়দের পুত্র আড়তদার ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম ও তার ছেলে মো: সালমান ব্যবসায়ী কাজ শেষে বদরখালী কে.বি জালাল উদ্দিন সড়ক দিয়ে পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিল। প্রতিমধ্যে কুতুবদিয়া পাড়াস্থ আড়তদার ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম চলাচল রাস্তায় পৌছলে ওই এলাকার মো: মোস্তফা ও মো: শাহজাহানের নেতৃত্বে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা বদরখালী সমবায় কৃষি ও উপনিবেশ সমিতির মেম্বারশীপ (সভ্য পদ) বিষয় নিয়ে তাদের পথ অবরুদ্ধ করে দেশীয় তৈরি ধারালো অস্ত্রনিয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালায়। এতে আড়তদার ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে কুপিয়ে পরো শরীরে গুরুতর আহত করে তার কাছে থাকা ব্যবসার বিক্রিত নগদ ১লক্ষ ২৫ হাজার থাকা ছিনিয়ে নেয়া হয়। তার ও ছেলে সালমানের শোর চিৎকারে পরিবারের লোকজন এগিয়ে আসলে তাদেরকে মারধর করে আহত করা হয়। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় গুরুতর আহত আড়তদার ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম (৫৫) কে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

- Advertisement -

এ ঘটনায় আহত আড়তদার ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামের ছেলে মো: সালমান বাদী হয়ে শনিবার রাতে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৩/৪ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে শনিবার রাতে থানায় একটি এজাহার জমা দিয়েছেন।

এ বিষয়ে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘটনার বিষয়ে থানায় একটি এজাহার দেয়া হয়েছে। এটি মামলা হিসেবে রুজু করা হচ্ছে।

- Advertisement -
এই জাতীয় আরও সংবাদ
- Advertisment -

জনপ্রিয় সংবাদ