সোমবার, জুলাই ৪, ২০২২

ঝিনাইদহে ঝড়ে ১০ গ্রামে ব্যাপক ক্ষতি, বজ্রপাতে নারীর মৃত্যু

শেখ ইমন,ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

- Advertisement -

ঝিনাইদহে কালবৈশাখী ঝড় ও বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩ উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম। এ সময় বজ্রপাতে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এলাকাবাসী জানায়, শনিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে হঠাৎ করেই আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। মুহূর্তেই শুরু হয় প্রচণ্ড ঝড়বৃষ্টি। এতে কালীগঞ্জ উপজেলার এনায়েতপুর, রঘুনাথপুর, পিরোজপুর ও খোসালপুরসহ ১০টি গ্রাম ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।১৫ মিনিট স্থায়ী হওয়া এই ঝড়ে বাড়িঘর, আম, কলা, ফসল, বিদ্যুতের পোল ও বিভিন্ন গাছ ভেঙে গেছে। ওই এলাকায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

- Advertisement -

একই সঙ্গে হরিণাকুন্ডু উপজেলা জোড়াদহ, মালিপাড়া, হরিয়াঘাট, দোবিলা, ভবানীপুর ও তৈলটুপিসহ কয়েকটি গ্রামে পান ও কলার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অপরদিকে ক্ষেতে বেগুন তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে রুপসি বেগম (৪৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন স্বামী গালাম নবী (৫০)। শনিবার সকালে ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার কুলচারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রুপসি বেগম ওই উপজেলার কুলচারা গ্রামের গোলাম নবীর স্ত্রী। স্থানীয়রা জানায়, শনিবার সকালে গ্রামের মাঠে নিজ ক্ষেতে বেগুন তুলতে যায় স্বামী ও স্ত্রী। সেসময় ঝড় বৃষ্টি শুরু হয়। হঠাৎ বজ্রপাতও হয়। এতে স্বামী ও স্ত্রী দুজনই বজ্রপাতে গুরুতর আহত হয়ে মাঠে পড়ে থাকে। পরে লোকজন ওই মাঠে গিয়ে পড়ে থাকতে দেখে তাদেরকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক রুপসি বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। স্বামী গোলাম নবী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এদিকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডেফলবাড়ীয়া গ্রামে গোয়াল ঘরে থাকা আশরাফুল ইসলামের এক জোড়া মহিষের মৃত্যু হয়। যার ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৬ লাখ টাকা হবে বলে জানায় পরিবার।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: মোহনগঞ্জে এফ অই ভিডিবির পুষ্টি মেলা

- Advertisement -
এই জাতীয় আরও সংবাদ
- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

- Advertisment -