শনিবার, অক্টোবর ১, ২০২২

শিশুদের হাতে হাতে হাতুড়ির বদলে কলম চাই বিশ্ব শিশু শ্রম প্রতিরোধ দিবসে মুহাম্মদ আলী

- Advertisement -

১২ জুন বিশ্ব শিশু শ্রম প্রতিরোধ দিবস।
প্রতি বছর ১২ জুন বিশ্ব শিশুশ্রম বিরোধী দিবস হিসেবে পালন করা হয়। ১৯ বছর আগে এই দিবসের সূচনা করেছিল আন্তর্জাতিক শ্রম সংঘ। ১৪ বছরের কম বয়সী শিশুদের শ্রম না করিয়ে তাদের শিক্ষার সুযোগ দান ও অগ্রগতির লক্ষ্যে সচেতনার প্রসারই এই দিবসের লক্ষ্য।

- Advertisement -

 

কিন্তু বাস্তবে শুধু মাত্র কাগজে কলমে বা টেলিভিশনে প্রচারের মাধ্যমেই এই দিবস পালিত হয়। এই দিবসের যে লক্ষ্য শিশু শ্রম প্রতিরোধ করা তা মোটেও কোন উদ্যোগ বা ব‍্যবস্থা নেওয়া হয় না। যে বয়সে শিশুদের হাতে কলম থাকার কথা সেই বয়সে শিশুদের জীবিকার লড়াইয়ে হাতে তুলে নিতে হচ্ছে হাতুড়ি। এই শিশু শ্রমের অন‍্যতম কিছু কারণও আছে বটে তন্মধ্যে পরিবারের দারিদ্রতা, পারিবারিক কলহের কারণে স্বামী স্ত্রী আলাদা হয়ে যাওয়ার কারণে শিশু তার পিতা মাতা থেকে বঞ্চিত হওয়া,রাষ্ট্রীয়ভাবে সকল শিশুর কিছু মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হওয়াও অন‍্যতম কারণ।

- Advertisement -

 

একটি শিশু শিক্ষা লাভ করা
তার মৌলিক অধিকার কিন্তু আদৌ কি সকল শিশু সেই অধিকার পাচ্ছে? সকল শিশুর অধিকার সমভাবে নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রের ভূমিকা সব চাইতে বেশি থাকতে হবে এবং এর পাশাপাশি পথ শিশুর সঠিক তালিকা প্রণয়ন করে তাদের থাকা খাওয়া শিক্ষা চিকিৎসা সহ যাবতীয় সকল অধিকার নিশ্চিত করণের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

- Advertisement -

বর্তমান সরকার ২০২৫ সালে দেশ থেকে শিশু শ্রম বন্ধে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সেটা বাস্তবায়ন করতে হলে আগে দেশ থেকে দারিদ্রতার হার কমিয়ে আর্থিক সচ্ছলতা তৈরি করতে হবে। কারণ একটি পরিবার যখন অসচ্ছল বা পরিবারের অন‍্য সদস্যদের উপার্জনে সংসার চালানো কঠিন হয়ে পড়ে তখনই পরিবারের ছোট শিশুটিও সংসারের হাল ধরতে জীবন যুদ্ধে নেমে পড়ে। এভাবেই শিশু শ্রম দিনদিন বৃদ্ধি পা। ফলে যে বয়সে শিশুর হাতে থাকার কথা বই খাতা কলম সেই হাতে উঠে হাতুড়ি যা সত্যিই বিশ্বয়কর।

 

তাই এখনি সরকার বা রাষ্ট্র শিশু শ্রম বন্ধে সঠিক এবং সময়পোযোগী ব‍্যবস্থা গ্রহন করা অতিব জরুরী।তা নাহলে শিশুরা দিনদিন শিক্ষা থেকে পিছিয়ে অক্ষর জ্ঞান হীন হয় পড়বে। ফলে দেশে শিক্ষার হারের চেয়ে মুর্খতার হার বেড়ে যাবে যা ভবিষ্যতে রাষ্ট্রের জন্য হুমকি সরূপ। তাই সরকার সহ দেশের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশ থেকে শিশু শ্রম বন্ধ করে শিশুর হাতে হাতুড়ির বদলে বই খাতা কলম তুলে দিতে হবে।

- Advertisement -
এই জাতীয় আরও সংবাদ
- Advertisment -

জনপ্রিয় সংবাদ